Youtube google+ twitter facebook Bangla Font Help

২ পুরুষের সংসার করছেন এক নারী, রক্ষা পেতে স্বামীর আকুতি

৯:২৬ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৬, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল:: ভোলায় জাতীয় পরিচয় পত্রের মাধ্যমে জালিয়াতি করে একই সাথে দুই স্বামীর সংসার করার অভিযোগ উঠেছে নূর নাহার নামের এক নারীর বিরুদ্ধে। একটি জাতীয় পরিচয়পত্রে নিজের নাম নূর নাহার, পিতা- রফিকুল ইসলাম, মাতা হনুফা বিবি। অপর একটি জাতীয় পরিচয় পত্রে সে নিজের নাম তামান্না আকতার, পিতা-শামসুল হক দুলাল, মাতা-মনোয়ারা বেগম। সে একেক যায়গায় একেক পরিচয় দিয়ে প্রতারনা করেন বলেও অভিযোগ রয়েছে। সোমবার দুপুর ১২টার দিকে ভোলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে তার স্বামী মোহাম্মদ মহিউদ্দিন এসকল অভিযোগ করেন।

লিখিত বক্তব্যে মোহাম্মদ মহিউদ্দিন জানান, ভোলা পৌরসভার ০৮ নম্বর ওয়ার্ড মুসলিম পাড়ার রফিকুল ইসলামের মেয়ে নূর নাহারের সাথে ২০০৮ সালে পারিবারিকভাবে ইসলামী শরীয়া মতে বিয়ে হয়। আমাদের দাম্পত্য জীবনে বেশ সুখেই কাটছিলো। বিয়ের কয়েক বছর পর বেড়িয়ে আসতে থাকে তার আসল রূপ। অশালীন চলাফেরা, বেপরোয়া জীবন আর একাধিক খারাপ ছেলেদের সাথে উঠাবসাসহ নানা বিকৃত চরিত্র বেড়িয়ে আসতে থাকে। এসবের প্রতিবাদ করতে গেলে আমার সাথে এবং আমার বাবা-মায়ের সাথে স্ত্রী নূর নাহারের সম্পর্কের অবনতি ঘটতে থাকে। এরই মধ্যে আমাদের ঘরে মহুয়া নামের কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। সন্তানের মুখের দিকে তাকিয়ে স্ত্রীকে নিয়ে ভোলার সদরের রাজাপুরের জনতাবাজার এলাকায় আমার ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের পাশেই ঘরভাড়া করে বসবাস শুরু করি। সেখানে গিয়ে সে আরো বেপরোয়া হয়ে উঠে। এবং আমার সাথে আরো খারাপ আচরণ শুরু করে। এক পর্যায়ে সে যাতে এসকল কর্মকান্ড থেকে ফিরে আসে এবং ভালো হয়ে যায় সে জন্য তাকে তার বাবার বাড়ির পাশে ভোলা সদরে বাসা ভাড়া করে রাখি। সেখানেও সে পরিবারের সদস্যদের চোখ ফাঁকি দিয়ে বিভিন্ন ছেলেদের সাথে অনৈতিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে ২০১১ সালে পারিবারিকভাবে তাকে তালাকের মাধ্যমে কাবিনের এক লাখ পঞ্চাশ হাজার টাকা পরিশোধ ও ভরনপোষন বাবদ আরো পঞ্চাশ হাজার টাকা প্রদান করি। যেহেতু আমার মেয়েটি তখনো খুব ছোট তাই তাকে নুর নাহারের কাছ থেকে নিয়ে আসা সম্ভব হয়নি।

ফলে মেয়েকে দেখতে প্রায় আমাকে যেতে হতো। মেয়ের খরচের টাকা পয়সা দিতে হতো। এ সুযোগে সে ছলচাতুরী করে ও আমাকে ফাঁদে ফেলে ২০১৫ সালপ আমার কাছে দ্বিতীয় বারের মতো তিন লাখ টাকা কাবিনে বিয়ে বসে।

মহিউদ্দিন আরো অভিযোগ করে বলেন, আমার সাথে দ্বিতীয় বিয়ের পর সংসার চলাকালিন সময়ে নিজেকে বিধবা পরিচয় দিয়ে ১০ লাখ টাকা কাবিনে সালমান রহমান নামে এক ছেলেকে বিয়ে করে। এসময় নূর নাহার প্রতারণা করে একটি নতুন একটি জাতীয় পরিচয়পত্র করে। সেটিতে সে নিজের নাম তামান্না আকতার, বাবার নাম শামসুল হক দুলাল, মায়ের নাম মনোয়ারা বেগম উল্লেখ করেন। সে দুইটি জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে নিজের নাম পরিবর্তন করে প্রতারণা করে আসছে।

এ অবস্থায় আমি তাকে ২০১৭ সালে ডিভোর্স দিয়ে প্রাণ হারানোর ভয়ে দেশ ত্যাগ করে মালেশিয়া চলে যাই। কিন্তু সেখানে গিয়েও আমার শেষ রক্ষায় হয়নি। সে আমার ও আমার পরিবারের বিরুদ্ধে এ পর্যন্ত ১০টি মিথ্যা মামলা দিয়েছে। আমার কাছ থেকে বিভিন্ন সময়ে প্রায় ৩০ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।

কান্নাজড়িত কণ্ঠে মহিউদ্দিন বলেন, নূরুন নাহার ওরফে তামান্না আক্তার আমাকে এখনো বিভিন্ন মিথ্যা মামলার হুমকি দিচ্ছে। আমাকে জেল খাটানোর ভয়সহ আমার পরিবারকে নাজেহাল করার হুমকি দেয়া হচ্ছে। আমার জীবন আজ বিপন্ন। টাকা পয়সা, জায়গা জমি, ধন সম্পদ সব হারিয়ে আজ আমি নি:স্ব। আমার বাঁচার মতো কোনো অবলম্বন এখন আর নেই। অথচ মাথার ওপর একেরপর এক মামলার খড়ক। মাঝে মাঝে ইচ্ছে হয় আত্মহত্যার পথ বেঁছে নেই।

সর্বশেষ আমি প্রশাসনের কাছে এসব মামলার সঠিক তদন্ত করে এ নারীর হাত থেকে আমাকে এবং আমার পরিবারকে বাঁচানোর জোর দাবি জানাচ্ছি।’

[addthis tool="addthis_inline_share_toolbox_nev1"]

পাঠকের মন্তব্য

rss goolge-plus twitter facebook
Design & Developed By:

উপদেষ্টা মন্ডলির সভাপতি- ফারজানা ইয়াসমিন রিমি
উপদেষ্টা : মোঃ আসাদুজ্জামান । খন্দকার রাকিব
প্রকাশক ও সম্পাদক  : এম. জাহিদ 
উপ-সম্পাদক : শফিকুল ইসলাম রাতুল মৃধা
সহ- সম্পাদক : খন্দকার রাজিব
সহ- ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: মোঃ জসিম শরীফ

ই-মেইল: ,

  • বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়-

ভূইয়া ভবন, ৩য় তলা

ফকিরবাড়ী রোড, বরিশাল।

  • যোগাযোগ- ০১৭৯২০৫৯০৩২

ই-মেইল: mjahidbsl@gmail.com

টপ
  এবার পরীক্ষা নয়, লটারির মাধ্যমে স্কুলে ভর্তি: শিক্ষামন্ত্রী   মাধ্যমিকে বার্ষিক পরীক্ষা বাতিল   ঢাবির ভর্তি পরীক্ষা হবে সশরীরে   প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ   ২৫ ডিসেম্বরের মধ্যে এইচএসসির ফল   উন্নয়নের ধারাকে ধরে রাখতে শিক্ষার বিকল্প নেই   ১৭ অক্টোবর থেকে কিন্ডারগার্টেন খোলার দাবি   আগের ক্লাসের ফলের ভিত্তিতে মাধ্যমিকে পরবর্তী ক্লাস!   আসামিরা গ্রেফতার না হওয়া পর্যন্ত অনশন চালিয়ে যাবেন ঢাবির সেই ছাত্রী   করোনাঃ এসএসসি পরীক্ষা আয়োজন অনিশ্চিত   প্রাথমিকে শিক্ষক বদলি চলতি মাসেই    মৃত ব্যাক্তির নামে ব্যাংকে বেতন বিল দাখিল   আরও বাড়ছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি!   এইচএসসি পরীক্ষা প্রস্তুতি নেবে শিক্ষা বোর্ড   জেলা পর্যায়ে ২৫ শতাংশ প্রাথমিক বিদ্যালয় খুলে দেয়ার প্রস্তাব   প্রাথমিক বিদ্যালয় খুলতে প্রস্তুতি শুরুর নির্দেশ   একাদশ শ্রেনীর পাঠ্যবই নিয়ে শংকায় শিক্ষার্থীরা   বরিশালের ২২টি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক সংকট ভয়াবহ   ভর্তি কার্যক্রম শুরু একাদশে   বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের আয়োজনে অনলাইনে ‘বঙ্গবন্ধু অলিম্পিয়াড