রাত ১২:০৯ ; মঙ্গলবার ; ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
facebook Youtube google+ twitter
×

বরিশাল ছাড়তে হবে মেট্রোপলিটন পুলিশের পৌনে দুইশ সদস্যকে

৬:২৩ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল ॥ বহুবছর ধরে বরিশালে থাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রায় পৌনে দুইশ সদস্যকে এবার ছাড়তে হচ্ছে বরিশাল। কনস্টেবল থেকে পরিদর্শক পদমর্যাদার কর্মকর্তারা আছেন এ তালিকায়। তাদের ৫০-৬০ জন চাকরির শুরু থেকেই আছেন বরিশালে। কম করে হলেও ১৬-১৭ বছর আছেন অন্যরা। নানা কৌশলে বরিশালে থাকাই কেবল নয়, অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগও রয়েছে অনেকের বিরুদ্ধে। কেউ আবার জমি-বাড়ি কিনে গড়েছেন সাম্রাজ্য। এমন ১৭৬ জনের তালিকা করেছে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ (বিএমপি)। স্বেচ্ছায় পছন্দমতো স্থানে যাওয়ার চেষ্টা করতে বলা হয়েছে তাদের। দেওয়া হয়েছে নির্দিষ্ট সময়। তারপর শুরু হবে বদলি প্রক্রিয়া। বিষয়টিকে শুদ্ধি অভিযান আখ্যা দেওয়া হলেও সংবাদকর্মীদের কাছে মুখ খুলছেন না কেউ। পুলিশের চাকরিতে বদলি একটি স্বাভাবিক প্রক্রিয়া-এমনটাই বলছেন বিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

৪ থানা, ৪ ফাঁড়ি, ডিবি, সিটি এসবি ও পুলিশ কমিশনারের কার্যালয় মিলিয়ে বিএমপিতে কর্মরত সদস্যের সংখ্যা ১ হাজার ৭৩১। তাদের মধ্যে সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) থেকে কমিশনার পদে ৫৯৬ জন কর্মরত। বাকিরা নায়েক হাবিলদার কিংবা কনস্টেবল। কাঠামো অনুযায়ী এরপরও ৩৬৯টি পদ শূন্য।

পরিচয় গোপন রাখার শর্তে বিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পদমর্যাদার এক কর্মকর্তা বলেন, যাদের কথা বলা হচ্ছে তারা সবাই মাঠপর্যায়ে কর্মরত। আশপাশের জেলা কোঠায় নিয়োগ পেয়ে পোস্টিং নেন বরিশালে। তারপর থেকেই আছেন। দাপ্তরিক নিয়ম মানতে মাঝেমধ্যে হয়তো যান এ থানা থেকে ওই থানায়। ২-৪ মাসের জন্য ঘুরে আসেন ডিবি, এসবি অন্য জেলা অথবা আদালতে। দিনের শেষে সবাই কিন্তু থেকে যান বরিশালেই। বিয়ে করে বানিয়েছেন আত্মীয়ের দীর্ঘ তালিকা। নগরবাসীর কাছেও তারা ঘনিষ্ঠ পরিচিত। তাদের দিয়ে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে প্রায়ই বাধে জটিলতা। পরিচিত মুখ হওয়ায় দেখেই পালায় আসামি। আত্মীয়তা কিংবা পরিচয় সূত্রে অপরাধীদের বাঁচানোর চেষ্টাও থাকে কারও কারও মধ্যে। এসব বিবেচনা করেই তাদের সরানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আলোচ্য পৌনে দুইশর বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে রয়েছে অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ। তাদের মধ্যে নগরে কয়েক কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত সুদৃশ্য ভবন রয়েছে পরিদর্শক পদমর্যাদার এক কর্মকর্তার। মাঝে কদিন অন্য জেলায় থাকা ছাড়া চাকরির শুরু থেকেই তিনি আছেন বরিশালে। আরেকজন শিক্ষানবিশ উপপরিদর্শক পদে যোগ দেওয়ার পর থেকে আছেন এখন পর্যন্ত। পরিদর্শক পদের এ কর্মকর্তা রয়েছেন একটি থানার দায়িত্বে। এছাড়া এক নিরস্ত্র পরিদর্শক আছেন চাকরির শুরু থেকেই। পিছিয়ে নেই উপপরিদর্শক (এসআই) পদের কর্মকর্তারাও। নগরের জিয়া সড়কে ভবন, কলেজ অ্যাভিনিউ এলাকায় ফ্ল্যাট, রুইয়ার পোল এলাকায় জমি ও সিঅ্যান্ডবি রোডে প্লটের মালিক ৪ উপপরিদর্শক এখানে আছেন এক যুগেরও বেশি সময়। এছাড়া এএসআই পদের এক কর্মকর্তা সদর উপজেলার চরকাউয়া এলাকায় অর্ধকোটি টাকারও বেশি মূল্যে কিনেছেন জমি। যিনি ১২-১৩ বছর আছেন মেট্রো পুলিশে। এর পাশাপাশি স্ত্রী, ছেলেমেয়ে কিংবা ভাইয়ের নামে বিত্তের মালিক হয়েছেন বিভিন্ন পদমর্যাদার মাঠপর্যায়ের বেশ কয়েকজন পুলিশ কর্মকর্তা।

নাম না প্রকাশের শর্তে মেট্রো পুলিশের দক্ষিণ বিভাগের এক কর্মকর্তা বলেন, সঠিক পন্থায় অভিযোগ না আসায় কোনো ব্যবস্থা নেওয়া যায় না। এছাড়া দাপ্তরিক কিছু জটিলতাও আছে। এ মুহূর্তে সবচেয়ে জরুরি হচ্ছে মেট্রো পুলিশে শৃঙ্খলা ফেরানোর পাশাপাশি ভাবমূর্তি অক্ষুণ্ন রাখা। এ কারণেই এই শুদ্ধি অভিযান।

পুলিশ কমিশনার কার্যালয়ের আরেক কর্মকর্তা বলেন, বছর দুয়েক আগেও এরকম শুদ্ধি অভিযান চালানো হয়েছিল। হাইওয়ে পুলিশের বর্তমান প্রধান অতিরিক্ত আইজি শাহাবুদ্দিন তখন ছিলেন এখানকার পুলিশ কমিশনার। একটি ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ওই সময় মেট্রো পুলিশের মাঠপর্যায়ের বেশ কয়েকজন কর্মকর্তাকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল বরিশাল থেকে। বরিশালের পুলিশ কমিশনার জিহাদুল কবির বলেন, বদলি পুলিশের একটি নিয়মিত প্রক্রিয়া। এটাকে ভিন্নভাবে সংজ্ঞায়িত করার সুযোগ নেই। একটি নির্দিষ্ট সময়ের পর সবাইকে নতুন জায়গায় বদলি করা হয়। এর বাইরে আমার কিছু বলার নেই।

পুলিশের অতিরিক্ত আইজি শাহাবুদ্দিন আহম্মেদ বলেন, পুলিশ প্রবিধান আর প্রভিশন কিন্তু এক নয়। এটা ঠিক যে একই কর্মকর্তা দীর্ঘদিন একই জায়গায় থাকলে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ প্রশ্নে খানিকটা হলেও জটিলতা হয়। দীর্ঘ সময়ে ওই কর্মকর্তার ঘনিষ্ঠ একটা বলয় তৈরি হয়। জেলা পুলিশের ক্ষেত্রে একটা নিয়ম আছে নিজ জেলায় কোনো পুলিশ কর্মকর্তা চাকরি করতে পারবেন না। মেট্রোর ক্ষেত্রে বিষয়টি জটিল। তবু আমি মনে করি, সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন প্রশ্নে একই স্টেশনে কোনো কর্মকর্তার যেমন ৩ বছরের বেশি থাকা উচিত নয়, তেমনই তাকে রাখাও উচিত নয়।

জাতীয়, বরিশাল, বরিশাল বিভাগ, সারাদেশ, হোম
[addthis tool="addthis_inline_share_toolbox_nev1"]

আপনার মতামত লিখুন :

এই বিভাগের আরো সংবাদ

প্রকাশক ও সম্পাদক: এম.জাহিদ
যুগ্ম সম্পাদক: মোঃ আরিফ খান
বার্তা সম্পাদক: আরিফুল ইসলাম
নির্বাহী সম্পাদকঃ শুভ কুন্ডু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ জহিরুল ইসলাম
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৮৮৬৬১
বার্তা বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ভুইয়া ভবন (৩য় তলা) ফকিরবাড়ী রোড, বরিশাল -৮২০০

ই-মেইল: formalnewsbsl@gmail.com
টপ
  বাবুগঞ্জে স্কুল শিক্ষিকা স্ত্রীর পরকীয়া প্রেমে বাঁধা দেয়াই কাল হলো সোলায়মানের!   শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আগুন   বরিশালে ফরচুন সুজের শ্রকিদের ওপর গুলি বর্ষণ, পুলিশসহ আহত ১০   যায়যায়দিন ব‌রিশাল ব্যুরো অ‌ফি‌সের রি‌পোর্টার হ‌লেন এম.জাহিদ   শ্রমিকদের ওপর হামলায় সড়ক অবরোধ, উত্তপ্ত বরিশাল কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল   ‘হিট স্ট্রোকে’ এক সপ্তাহে ১০ জনের মৃত্যু: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর   বরিশালে ক্লাস ফাঁকি দিয়ে পার্কে আড্ডা দেয়ায় অর্ধশত শিক্ষার্থী আটক   সরকারকে ক্ষমতায় রেখে জনগণের মুক্তি সম্ভব না: চরমোনাই পীর   বরিশালে প্রধানমন্ত্রীর জনসভায় শাম্মী-পঙ্কজ অনুসারীদের সংঘর্ষ, একজনের মৃত্যু   বরিশালে ডেঙ্গুতে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু   প্রতারক মাকসুদকে ধরিয়ে দিন   বরিশালে কাবিনের টাকা নিয়ে বনিবনা না হওয়ায় পালালো প্রেমিক   এস.এম জাকির হোসেনের মায়ের মৃত্যুতে বিভিন্ন সংগঠনের শোক   ৫০ বছরের বেশি সময় ধরে বরিশালে সাংবাদিকতায় আলো ছড়িয়েছেন এসএম ইকবাল   বরিশালের সেই মাদক সম্রাট রাসেল মেম্বর এবার ইয়াবার বড় চালানসহ গ্রেপ্তার   নিষেধাজ্ঞা নিয়ে ‘বিরক্ত’ জেলেরা, তবুও ছাড়তে পারেন না পেশা   আওয়ামী লীগ দেশকে অনিবার্য সংঘাতের দিকে ঠেলে দিয়েছে: চরমোনাই পির   এক সপ্তাহ পরেই শীতের আমেজের আভাস   আবার সরকারে এলে ফরিদপুরে বিশ্ববিদ্যালয় করে দেবো: প্রধানমন্ত্রী   ১৯৭০ সালে জন্ম, ১৯৭৫ সালে এসএসসি পাস করেছেন ঝালকাঠির শিক্ষক মোবারক!