বিকাল ৫:৫১ ; বৃহস্পতিবার ; ২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
facebook Youtube google+ twitter
×

বরিশালে হঠাৎ সক্রিয় জামায়াত: সতর্ক পুলিশ বাড়িয়েছে নজরদারি

১২:৩৭ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৫, ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক:: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে বিভিন্ন ইস্যুতে বরিশালে হঠাৎ করে সক্রিয় হয়ে উঠেছে জামায়াতের নেতাকর্মীরা। কেন্দ্রঘোষিত কর্মসূচি বা কোনো বিশেষ দাবি নিয়ে স্বাধীনতাবিরোধী এই দলটি রাজপথে সরব হতে চাইছে। কিন্তু আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তথা পুলিশের কঠোরতায় রাজপথে শক্তভাবে দাঁড়াতে পারছে না। বরং পুলিশ গত কয়েকদিনে বিশেষ অভিযান এবং ইস্যু নিয়ে রাজপথে নামার প্রাক্কালে বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করে। রাজাকারদের আশ্রয়-প্রশ্রয়দাতা এই রাজনৈতিক দলটির নেতাকর্মীরা হঠাৎ মাঠে নামায় শান্ত বরিশালে অশান্তির আশঙ্কা করা হচ্ছে। সাংসদ নির্বাচন পূর্ব জামায়াত যে শুধু বরিশালে সক্রিয় তা নয়, রাজধানীসহ সারা দেশেই আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু করতে চাইছে। বিশেষ করে বিএনপির ‘এক দফা’ সরকারের প্রদত্যাগ আন্দোলন কর্মসূচিকে সমর্থন জানিয়ে মাঠে স্বরুপে ফিরতে চাইছে দলটি। বরিশালের রাজপথে হঠাৎ জামায়াতের আবির্ভাব এবং সাংসদ নির্বাচন পূর্ব দলটির নেতাকর্মীরা বড় ধরনের কোনো অঘটন ঘটাবে কী না- তা নিয়ে সুশীল ও রাজনৈতিক মহলে নানান প্রশ্নের সৃষ্টি করেছে। যদিও বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের শক্তপোক্ত ভূমিকা এবং জামায়েতের নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তারে নগরবাসী কিছুটা স্বস্তি দেখছে।

সপ্তাহখানেক আগে রাজাকার জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী কারান্তরে মারা গেলে দলটির নেতাকর্মীরা ক্ষোভে ফুঁসে ওঠে এবং রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক সহিংসতা চালায়। জানমাল রক্ষার্থে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী হার্ডলাইনে অবস্থান করলে জামায়াতের নেতাকর্মীদের সাথে সংঘর্ষ হয়। এতে কয়েকজন পুলিশ সদস্য আহতসহ দলটির কজন কর্মী মৃত্যুবরণ করে। তখন স্বয়ং পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন, সাঈদীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে জামায়াত কোনো নাশকতা চালালে কঠোর হস্তে দমন করা হবে। মূলত এই নির্দেশনার পরপরই বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ প্রশাসন জামায়াতের বরিশালের নেতাকর্মীদের ওপর বিশেষ নজর দিয়েছে, বাড়িয়েছে সতর্কতা।

বরিশাল পুলিশের একটি দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, দলটির প্রয়াত নেতা সাঈদীর কারান্তরে মৃত্যু এবং আওয়ামী লীগ সরকারবিরোধী বিভিন্ন ইস্যুতে জামায়াত নেতাকর্মীরা রাজপথে সক্রিয় হওয়ার অপতৎপরতা চালাচ্ছে। কিন্তু নির্দেশনা রয়েছে, অনুমতি ব্যতিত দলটির নেতাকর্মীরা যাতে মাঠে নামতে পারে। পাশাপাশি তাদের সার্বিক কার্যক্রমের ওপর সতর্ক নজরদারি রাখা হয়েছে। এছাড়া পুলিশের শীর্ষমহল থেকে জামায়াত ইস্যুতে যে দিক নির্দেশনা দেওয়া আছে, তা মাঠপুলিশকে পালন করতে বলা আছে। ফলে পুলিশ হার্ডলাইনে থাকায় বরিশালে জামায়াত নেতাকর্মীরা সরকারবিরোধী আন্দোলন সংগ্রামতো দূরের কথা, রাজপথেই দাঁড়াতে পারছে না।

সুশীলমহল বলছে, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে ইসলাম ভিত্তিক রাজনৈতিক দলটির নেতাকর্মীরা মাঠে নামতে যে অপতৎপরতা চালাচ্ছে, তাতে বরিশাল নগরবাসীর মধ্যে আতঙ্ক বাড়লেও পুলিশের শক্ত ভূমিকা স্বস্তি দিচ্ছে। এবং বরিশাল পুলিশ প্রশংসারও দাবিদার। কিন্তু স্বাধীনতাবিরোধী এই দলটির নেতাকর্মীদের অতীত ইতিহাস এতটাই নগ্ন, যা ভাবলে কেউ শিহরিত হবেন। বিশেষ করে ২০০১ সালে বিএনপির শাসনামলে আমলে জামায়াত যে রক্তের হলিখেলা দেখিয়েছে, তা অনুমানে আনলে রাতের ঘুম হারাম হয়ে যায়।

রাজনৈতিক বোদ্ধারা বলছেন, তাদের দলের নেতা রাজাকার সাঈদীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে জামায়াত শিবির সারা দেশে বিশৃঙ্খল পরিবেশ তৈরি করতে চাইছে। বিশেষ করে তারা বিএনপির ‘এক দফা’কে সমর্থন পরবর্তী মাঠে নামায় সংঘাত-সহিংসতার আশঙ্কা আরও বাড়িয়ে তুলেছে। রাজাকারদের আশ্রয়-প্রশ্রয়দাতা এই রাজনৈতিক দলটির নেতাকর্মী অর্থাৎ ক্যাডারবাহিনীকে আইনের আওতায় আনা না গেলে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন পূর্বাপর সংঘাতময় করে তুলতে পারে, এমন ভাবনায় হলেও বরিশাল পুলিশকে সতর্কতার পাশাপাশি আরও নজরদারি বৃদ্ধি করতে হবে।

এই আশঙ্কা আরও বৃদ্ধি করেছে, জামায়াতের আমির এবং সেক্রেটারিসহ ৯৬ জনের বিচার প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে। সূত্র জানায়, সাঈদীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে বুধবারই যে জামায়াত প্রথম বরিশালে নেমেছে, বিষয়টি এমন নয়। বাংলাদেশ প্রশাসনের সাবেক কজন কর্মকর্তার ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা আসার পরপরই জামায়াত ইসলামী রাজনৈতিক কার্যক্রমে গতি বাড়িয়ে দেয়। দলের শীর্ষ নেতাদের বিচার এবং আওয়ামী লীগ সরকারবিরোধী আন্দোলনকে সংসদ নির্বাচন এই দলটির নেতাকর্মীরা ভয়াত্মক রুপ ধারন করতে পারে। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাও এমনটি মনে করছেন।

বরিশাল জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন দায়িত্বশীল নেতা জানান, জামায়াত যে একটি উগ্রবাদী সংগঠন তা ইতিমধ্যে তাদের সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে প্রমাণ করেছে। এছাড়া দলটির শীর্ষ নেতারা ছিলেন স্বাধীনতাবিরোধী এবং পাকিস্তানীদের দোষর। দেশের সর্বোচ্চ আদালতের তাদের কারও ফাঁসি, কারও যাবজ্জীবন সাজা হয়েছে, যাদের একজন আমৃত্যু সাজাপ্রাপ্ত দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী সপ্তাহখানেক আগে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। রাজাকারের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে তারা বরিশালে নাশকতা চালাতে চেয়েছিল, কিন্তু আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তথা পুলিশের কঠোরতায় তেমন একটা সুবিধা করতে পারেনি। এখন নতুন নতুন ইস্যু তৈরি করে নির্বাচনের আগে মাঠে নামতে চাইবে এবং পরিবেশ উত্তপ্ত করার অপতৎপরতা চালাবে।

বরিশাল মাঠপুলিশের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে, রাজনৈতিক দলগুলোর কর্মসূচি পালনের ক্ষেত্রে প্রশাসনের অনুমতি নিতে হয়, কিন্তু জামায়াত তা করেনি। বুধবার নগরের রাজুমিয়ার পোলসংলগ্ন একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে গুটিকয়েক নেতাকর্মীরা। এসময় সংশ্লিষ্ট কোতয়ালি মডেল থানা পুলিশের এসআই আরাফাত হাসানের নেতৃত্বে একটি টিম তাদের ধাওয়া দিয়ে অন্তত চারজনকে গ্রেপ্তার করে, যাদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে নাশকতার মামলা রয়েছে। থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিপ্লব কুমার এই তথ্য বরিশালটাইমসকে নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, গ্রেপ্তার সুলতান হাওলাদার (৪০), মো. মিজানুর রহমান সালাম (৬৫), নাছির উদ্দিন (৪০) এবং আল মুঈনের (১৯) বিরুদ্ধে নতুন কোনো মামলা হয়নি। বরং তাদের বিগতসময়ে সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে এবং পরবর্তীতে আদালত তাদের কারাগারে পাঠিয়ে দেন।

এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান, জামায়াত নেতাকর্মীরা অনুমতি না নিয়ে বুধবার বটতলা রাজুমিয়ার পোল এলাকায় কয়েকটি ইস্যু নিয়ে বিক্ষোভ চেষ্টা চালায়, তখনই তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এবং পরবর্তীতে খোঁজ নিয়ে জানা যায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে, কিন্তু তারা পলাতক ছিলেন।

তবে বরিশাল মহানগর জামায়াতের প্রচার সম্পাদক অ্যাডভোকেট শাহ আলম সাংবাদিকদের বলছেন, সংবিধান অনুযায়ী রাষ্ট্র রাজনৈতিক দলগুলোকে অধিকার আদায়ে মাঠে নামা এবং আন্দোলন করার সুযোগ দিয়েছে। কিন্তু আওয়ামী লীগ সরকার সেই স্বাধীনতা কেড়ে নিয়েছে। গণতন্ত্রকে নির্বাসনে পাঠানোর পাশপাশি তাদের শীর্ষ কয়েকজন নেতাকে রাজাকার আখ্যা দিয়ে ফাঁসিসহ সাজা দিয়েছে, আন্দোলনে অংশ নিয়ে অনেকে আছেন মিথ্যে মামলায় কারাবন্দি। তাদের মুক্তির দাবিতে আন্দোলন করতে গেলে পুলিশ শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে হামলা করে নেতাকর্মীদের মারধর করাসহ গ্রেপ্তার করছে।

একটি সূত্র জানায়, দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জামায়াত সারা দেশে মাঠ গোছাতে শুরু করেছে, তারা এবার বিএনপির সঙ্গ ত্যাগ করে নিজেরাই ৩০০ আসনে প্রার্থী দিতে পারে। মূলত এ কারণেই বিভিন্ন ইস্যুতে মাঠে নামার অপকৌশল নিয়েছে, নিচ্ছে। কিন্তু জামায়াতকে পুলিশ কিছুতেই মাঠে দাঁড়াতে দিচ্ছে না। তারপরেও দলটির নেতাকর্মীরা রাজপথে আওয়ামী লীগ সরকারবিরোধী আন্দোলনে সামিল হতে চাইছে, দিচ্ছে পতনের হুঁশিয়ারিও। কেন্দ্রীয় নেতাদের এই হুঁশিয়ারি এক ধরনের উস্কানির ন্যায় কাজ করছে, ফলশ্রুতিতে বরিশালের স্থানীয় নেতাকর্মীরা মাঠে নামার সাহস দেখাচ্ছে।

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের শীর্ষমহলের ভাষ্য হচ্ছে, সংসদ নির্বাচনের আগে বা পরে যদি কোনো গোষ্ঠী আন্দোলন সংগ্রামের নামে অরাজকতা করতে চায়, তাদের কঠোর হস্তে দমন করা হবে। বিশেষ করে জানমালের ক্ষতি হয়, এমন কিছু করতে চাইলে বিন্দু পরিমাণও ছাড় দেওয়া হবে না।

অবশ্য বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. সাইফুল ইসলামের সাথে আলাপচারিতায়ও এমনটি আভাস পাওয়া গেছে। শীর্ষ পুলিশ কর্মকর্তার ভাষ্য হচ্ছে, রাজনৈতিক কর্মসূচি পালনের নামে নাশকতা করে কেউ পার পাবে না। মাঠপুলিশকে এমনটাই নির্দেশনা দেওয়া আছে। এছাড়া বরিশাল জামায়াতের অসংখ্য নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে, বুধবার যাদের বটতলা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তাদের বিরুদ্ধেও আদালতে একাধিক মামলা বিচারাধীন।

পুলিশ কমিশনারের এমন বক্তব্য কিছুটা হলেও ধারনা দেয় যে, সরকারের শীর্ষমহল থেকে নতুন কোনো নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত পুলিশ জামায়াত ইস্যুতে হার্ডলাইনেই থাকছে। নির্বাচনের আগে যে কোনো কর্মসূচি নিয়ে মাঠে নেমে যদি সংঘাত বা সহিংসতার জন্ম দেয় এবং এতে জনগণ ক্ষতিগ্রস্ত হলে দলটির নেতাকর্মীদের চরম খেসারত দিতে হবে। বরিশাল পুলিশের শীর্ষ কর্মকর্তার এমন হুঁশিয়ারি নগরবাসীর মনে আস্থা জুগিয়েছে, বৃদ্ধি করেছে সাহস।

কিন্তু তারপরেও আওয়ামী লীগসহ সুশীলমহল থেকে দাবি এসেছে, স্বাধীনতাবিরোধী জামায়াত যেনো অন্তত বরিশালের মাটিতে মাথা তুলে না দাঁড়াতে পারে। আগামী দিনগুলোতে দলটির যেকোনো সরকারবিরোধী কর্মসূচি রুখে দিতে পুলিশকে আরও সতর্কতার পাশাপাশি কঠোর হতে হবে, মন্তব্য পাওয়া গেছে।

জামায়াত নেতাকর্মীরা আগামীতে বরিশাল কোনো সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করলে রাজপথে থেকে উচিৎ জবাব দেওয়া হবে, মন্তব্য করেছেন
মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট একেএম জাহাঙ্গীর হোসেন। তিনি বলেন, সংসদ নির্বাচনের আগে বিএনপি-জামায়াত দেশে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরি করতে চাইছে, তা করে কোনো লাভ হবে না। দেশের মানুষ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নে বিমোহিত হয়েছে, তারা সংকল্প নিয়েছে, এবারও নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে বিজয়ী করবে। এতে বিএনপি-জামায়াতের রাতের ঘুম হারাম হয়ে গেছে, তারা এখন উপায়ান্ত না পেয়ে ‘এক দফা’ আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা দিয়ে ২০১৪ সালের মতো জ্বালাও-পোড়াও শুরু করে দিয়েছে। তবে মানুষের জানমালের ক্ষতি হয়, এমন কিছু করতে দেবে না আওয়ামী লীগ।

অভিন্ন বিষয়ে জানতে মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহকে একাধিকবার ফোন করা হলেও অপরপ্রান্ত থেকে কোনো সাড়া মেলেনি। তবে তার ঘনিষ্ট একটি সূত্র জানিয়েছে, সরকারবিরোধী যে কোনো ষড়যন্ত্র রুখে দিতে সাদিক আব্দুল্লাহ সর্বদা কাজ করে যাচ্ছেন।

এছাড়া বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগ নেতা বরিশাল সদর আসনের এমপি পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অবসরপ্রাপ্ত) জাহিদ ফারুক শামীম এবং নতুন সিটি মেয়র আবুল খায়ের ওরফে খোকন সেরনিয়াবাতের কর্মী-অনুসারীরাও কেন্দ্রীয় কর্মসূচি পালনের পাশাপাশি বিএনপি-জামায়াতের সহিংসতা রুখে দিতে মাঠে থাকছেন।

পুলিশের কঠোরতা এবং পাল্টা কর্মসূচির ঘোষণা দিয়ে আওয়ামী লীগ মাঠে থাকায় বরিশালে জামায়াত আন্দোলন কর্মসূচি পালনে স্বস্তি পাচ্ছে না। বরং সার্বক্ষণিক দলটির নেতাকর্মীদের আতঙ্কে থাকতে দেখা যাচ্ছে, গ্রেপ্তার এড়াতে অনেকে রাতে নিজ ঘর অপেক্ষা বিশেষ স্থানকে নিরাপদ মনে করছেন। দলটির একাধিক সূত্র এই তথ্য বরিশালটাইমসকে নিশ্চিত করে। তবে তারা হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, আওয়ামী লীগ সরকারের পতন না ঘটিয়ে ঘরে ফিরবেন না, এতে যা যা করণীয় কেন্দ্রীয় নেতাদের নির্দেশে তা করবেন।

বরিশাল কেন্দ্রিক নেতাদের এমন হুঁশিয়ারি নির্বাচন পূর্ব নতুন সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের প্রাথমিক আলামত কী না, তা বিবেচনায় নিয়ে এখনকার পুলিশকে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বনে পরামর্শ দিয়েছে অভিজ্ঞমহল।

বরিশাল বিভাগ, সারাদেশ
[addthis tool="addthis_inline_share_toolbox_nev1"]

আপনার মতামত লিখুন :

প্রকাশক ও সম্পাদক: এম.জাহিদ
যুগ্ম সম্পাদক: মোঃ আরিফ খান
বার্তা সম্পাদক: আরিফুল ইসলাম
নির্বাহী সম্পাদকঃ শুভ কুন্ডু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ জহিরুল ইসলাম
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৮৮৬৬১
বার্তা বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ভুইয়া ভবন (৩য় তলা) ফকিরবাড়ী রোড, বরিশাল -৮২০০

ই-মেইল: formalnewsbsl@gmail.com
টপ
  বরিশালে ক্লাস ফাঁকি দিয়ে পার্কে আড্ডা দেয়ায় অর্ধশত শিক্ষার্থী আটক   সরকারকে ক্ষমতায় রেখে জনগণের মুক্তি সম্ভব না: চরমোনাই পীর   বরিশালে প্রধানমন্ত্রীর জনসভায় শাম্মী-পঙ্কজ অনুসারীদের সংঘর্ষ, একজনের মৃত্যু   বরিশালে ডেঙ্গুতে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু   প্রতারক মাকসুদকে ধরিয়ে দিন   বরিশালে কাবিনের টাকা নিয়ে বনিবনা না হওয়ায় পালালো প্রেমিক   এস.এম জাকির হোসেনের মায়ের মৃত্যুতে বিভিন্ন সংগঠনের শোক   ৫০ বছরের বেশি সময় ধরে বরিশালে সাংবাদিকতায় আলো ছড়িয়েছেন এসএম ইকবাল   বরিশালের সেই মাদক সম্রাট রাসেল মেম্বর এবার ইয়াবার বড় চালানসহ গ্রেপ্তার   নিষেধাজ্ঞা নিয়ে ‘বিরক্ত’ জেলেরা, তবুও ছাড়তে পারেন না পেশা   আওয়ামী লীগ দেশকে অনিবার্য সংঘাতের দিকে ঠেলে দিয়েছে: চরমোনাই পির   এক সপ্তাহ পরেই শীতের আমেজের আভাস   আবার সরকারে এলে ফরিদপুরে বিশ্ববিদ্যালয় করে দেবো: প্রধানমন্ত্রী   ১৯৭০ সালে জন্ম, ১৯৭৫ সালে এসএসসি পাস করেছেন ঝালকাঠির শিক্ষক মোবারক!   যাত্রী সংকটে বরিশাল বিমানবন্দরের ভবিষ্যৎ অনিশ্চয়তার মুখে   আজ সাংবাদিক এম.জাহিদ এর জন্মদিন   বরিশালে সাংবাদিকদের ওপর হামলাকারী চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আল্টিমেটাম   বদলি হলেন ওসি, সঙ্গে নিলেন থানার সোফা, এসি, টেলিভিশন   মনপুরায় ফের সাবেক ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ, থানায় মামলা   ভান্ডারিয়ায় নার্স-আয়াদের টানাটানিতে নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ